1. admin@dailypratidinerbarta.com : admin :
শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২:০৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
দুবাই বিমানবন্দর ৯ কোটি যাত্রীকে আতিথেয়তা দিয়েছে। আরও এক প্রতিবাদী কৃষকের মৃত্যু, পরিবারকে চাকরির দাবি  মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ‍্যমন্ত্রী মনোহর যোশী প্রয়াত  নতুন সিনেমায় শিশির সরদার ৫ বছরে দেশকে যে জায়গায় নিয়ে যেতে চান কাউখালী মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানের পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত। ঠাকুরগাঁওয়ে ৬শ পিস ইয়াবাসহ ২ মাদক কারবারি গ্রেফতার ঈদে ৬ দিন ছুটি পাচ্ছে আমিরাতের বাসিন্দারা কয়রায় স্কাউট আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাতা’র জন্ম বার্ষিকী পালন পীরগাছায় মিলিনিয়াম চাইল্ড স্কুলে সপ্তাহ ব্যাপী বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা, পিঠা উৎসব

পাটগ্রাম চলছে অনলাইন জুয়ার রমরমা ব্যবসা।

  • আপডেট সময় : রবিবার, ১৪ জানুয়ারি, ২০২৪
  • ৫০ বার পঠিত

মোঃ মিনাজ, লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ-

সারা দেশে অনলাইন জুয়ার ব্যবসা চললেও লালমনিরহাট জেলা পাটগ্রাম উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অতিরিক্ত ভাবে চলছে এই অনলাইন জুয়ার ব্যবসা যা ধ্বংসের দিকে প্রবাহিত হচ্ছে হাজারো যুবক।
লালমনিরহাটের পাটগ্রামে বিভিন্ন স্থানের মধ্যে ঘুরে দেখা গেলেও ২নং পাটগ্রাম ইউনিয়নের কালিরহাট বাজারে অধিক পরিমাণে যুবক আসক্ত এই জুয়ার ব্যবসায়,জানা গেছে কিছু নাম ধারি‌ এজেন্ট রয়েছে তারা একটি দোকানে বসে সারা দিন‌ ফ্লাক্সি লোড সিস্টেমে নিজ একাউন্টের কোড বললে সেই একাউন্টে ১০০ টাকা থেকে শুরু করে ২৫০০০ টাকা পর্যন্ত ডিপোজিট করে দিতে পারে এবং সেই টাকা দিয়ে ক্যাসিনো থেকে শুরু করে অন্য অন্য গেমে টাকা বাজি ধরে হেরে যায় প্রতিনিয়ত হাজার টাকা, এতে ক্ষতির দিকে প্রবাহিত হচ্ছে যুব সমাজ।

এলাকাবাসী বলেন এই অনলাইন জুয়ার মুল হলো এজেন্টরা এদের কে পুলিশ ধরে নিয়ে গেলে বন্ধ হবে এই জুয়া খেলা ও মুক্ত হবে যুব সমাজ ,এই জুয়া খেলায় আসক্ত এক ছেলে বলে আমি প্রথমে অন্যের ফোনে দেখতাম ক্যাসিনো অনলাইন জুয়া ২০ টাকা বাজি ধরে এবং যদি ৫ বা ৬ গুন দেয় তাহলে টাকা টাও গুন হয়ে নিজের একাউন্টে জমা হয় এভাবেই যখন দিগুন লাভ তখন আমি ভাবি নিজের একটা একাউন্ট খুলে আমিও খেলবো তখন সেই এজেন্টের কাছ থেকে একাউন্ট খুলে তার মাধ্যমে সহজেই টাকা ঠুকিয়ে বাজি ধরি প্রথম কয়েক বার জিতলেও পরে হেরে যাই আবার তখন আসল টাকা তুলার জন্য সেই এজেন্টের কাছ থেকে আবার টাকা লোড করে খেলা শুরু করি এই ভাবে খেলতে খেলতে আমি আসক্ত হয়ে যাই এবং এক পর্যায়ে আমি সব কিছু হারিয়ে নিঃস্ব।
আর একজন বলেন এজেন্টদের মাধ্যমে খুব সহজেই টাকা ডিপোজিট ও উওলন করা যায় জন্য অপ্রাপ্ত বয়সে ছেলেরা বেশি আসক্ত হয়েছে এ অনলাইন জুয়া খেলায় ।
এলাকাবাসীর দাবি খুব দ্রুত এইসব অনলাইন জুয়া ব্যবসার মুল এজেন্টদেরকে পুলিশের আওতাভুক্ত করে বন্ধ করে দেওয়া হক ক্যাসিনো থেকে শুরু করে সকল প্রকার অনলাইন জুয়ার ব্যবসা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২২ © দৈনিক প্রতিদিনের বার্তা ©
Theme Customized By Shakil IT Park