1. admin@dailypratidinerbarta.com : admin :
শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:২৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
দুবাই বিমানবন্দর ৯ কোটি যাত্রীকে আতিথেয়তা দিয়েছে। আরও এক প্রতিবাদী কৃষকের মৃত্যু, পরিবারকে চাকরির দাবি  মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ‍্যমন্ত্রী মনোহর যোশী প্রয়াত  নতুন সিনেমায় শিশির সরদার ৫ বছরে দেশকে যে জায়গায় নিয়ে যেতে চান কাউখালী মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানের পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত। ঠাকুরগাঁওয়ে ৬শ পিস ইয়াবাসহ ২ মাদক কারবারি গ্রেফতার ঈদে ৬ দিন ছুটি পাচ্ছে আমিরাতের বাসিন্দারা কয়রায় স্কাউট আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাতা’র জন্ম বার্ষিকী পালন পীরগাছায় মিলিনিয়াম চাইল্ড স্কুলে সপ্তাহ ব্যাপী বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা, পিঠা উৎসব

দুই বন্ধু মিলে খুন করলো সাবেক ইউপি সদস্যকে

  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩
  • ৫৩ বার পঠিত

অনলাইন ডেস্ক:-
বগুড়ার শিবগঞ্জে ছেলের সঙ্গে বিরোধের জেরে দুই বন্ধু মিলে সাবেক ইউপি সদস্য নারগিস আরা বেগমকে (৫৫) ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে। রবিবার (৫ ফেব্রুয়ারি) রাতে গ্রেফতারের পর তারা পুলিশের কাছে হত্যার দায় স্বীকার করে।

ওইদিন সকালে উপজেলার রায়নগর ইউনিয়নের রায়নগর মধ্যপাড়া গ্রামের শয়ন ঘরে এ ঘটনা ঘটে। এ ব্যাপারে নিহতের মেয়ে ডা. তানিয়া আফরোজ শিবগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা করেছেন।

শিবগঞ্জ থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) হাসমত উল্লাহ জানান, স্বীকারোক্তি রেকর্ডের জন্য গ্রেফতার দুজনকে সোমবার বিকালে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন-বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার রায়নগর ইউনিয়নের রায়নগর মধ্যপাড়া গ্রামের মিলন শেখের ছেলে মুন্না শেখ (২২) ও রায়নগর পশ্চিমপাড়ার লুলু মিয়ার ছেলে খালেদ হাসান (২২)।

সোমবার দুপুরে নিজ কার্যালয়ে প্রেস বিফ্রিংয়ে বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) আবদুর রশিদ জানান, নারগিস আরা বেগম শিবগঞ্জ উপজেলার রায়নগর ইউনিয়নের রায়নগর মধ্যপাড়া গ্রামের বাসিন্দা রায়নগর ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সভাপতি মরহুম আবদুল কাদের ফকিরের স্ত্রী। তিনি রায়নগর ইউনিয়নের সংরক্ষিত নারী আসনের সদস্য ছিলেন। তিনি বগুড়ার নিশিন্দারা উপশহর এলাকায় ছোট মেয়ে ডা. তানিয়ার আফরোজের বাড়িতে থাকতেন। রবিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তিনি স্বামীর বাড়িতে আসেন। এরপর নারগিসকে মোবাইল ফোনে আর পাওয়া যায়নি। সন্ধ্যায় বাড়ির শয়ন ঘরের মেঝেতে তার রক্তাক্ত মরদেহ দেখতে পাওয়া যায়।

এ ব্যাপারে নিহতের মেয়ে বাদী হয়ে অজ্ঞাতদের বিরুদ্ধে শিবগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা করেন। এদিকে মামলা দায়েরের পর পুলিশ মাঠে নামে। তদন্তে জানা যায়, নিহতের ছেলে আজিজুল ইসলাম মাদকাসক্ত। বর্তমানে তিনি একটি মাদক নিরাময় কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আজিজুল তার বন্ধু মুন্না শেখ ও খালেদ হাসানের সঙ্গে মাদক সেবন করেন। মাদক সেবন বা অন্য কোনও কারণে আজিজুলের সঙ্গে দুই বন্ধুর বিরোধ সৃষ্টি হয়। তারা তার মা নারগিসকে হত্যার পরিকল্পনা করেন। রবিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে নারগিস বাড়িতে ফেরেন। এর কিছুক্ষণ পর মুন্না বাড়িতে ঢুকে ধারালো ছুরি দিয়ে নারগিসের গলা, পিঠ ও মাথায় কুপিয়ে পালিয়ে যান। এ সময় খালেদ বাড়ির সামনে পাহারায় ছিলেন। হত্যাকাণ্ডের আগে মুন্না ও খালেদ ওই বাড়ির সামনে ঘোরাফেরা করছিল। পুলিশ স্থানীয়দের কাছে বিষয়টি জানতে পেরে এদিন রাত ১টার দিকে নিজ বাসা থেকে খালেদকে গ্রেফতার করে। তার দেওয়া তথ্যে রাত ৩টার দিকে বগুড়া সদরের মাটিডালি এলাকা থেকে মুন্নাকে গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশ কর্মকর্তা আরও জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে দু’জনই সাবেক ইউপি সদস্য নারগিসকে হত্যার দায় স্বীকার করেন। পরে তাদের দেখানো মতে নিহতের বাড়ি পাশের পুকুরপাড়ের ঝোঁপ থেকে রক্তমাখা ছুরি উদ্ধার করা হয়।

মুন্না ও খালেদকে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ডের জন্য সোমবার বিকালে বগুড়ার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২২ © দৈনিক প্রতিদিনের বার্তা ©
Theme Customized By Shakil IT Park